কানাডা ওয়ার্ক পারমিট (মাত্র ৯৭ হাজার টাকায় অবিশ্বাস্য হলেও সত্যি)

কানাডা ওয়ার্ক পারমিট ভিসা মাত্র ৯৭ হাজার টাকায়

কানাডা ওয়ার্ক পারমিট ভিসা মাত্র ৯৭ হাজার টাকা দিয়ে কিভাবে পাবেন এই সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য নিয়ে আজকের আর্টিকেল সাজানো হয়েছে। আপনারা যারা কানাডা যেতে চান বা কানাডা সম্পর্কে জানতে চান মূলত তাদের জন্যই আজকের আমাদের এই আর্টিকেল। চলুন কানাডা ওয়ার্ক পারমিট ভিসা সম্পর্কে যাবতীয় তথ্য জেনে নেওয়া যাক।

কানাডা ওয়ার্ক পারমিট ভিসা মাত্র ৯৭ হাজার টাকায়

আজকের আলোচ্য বিষয় কানাডা ওয়ার্ক পারমিট ভিসায় কিভাবে আপনারা মাত্র ৯৭ হাজার টাকা দিয়ে যেতে পারবেন। হয়তো অনেকের কাছেই এটা অবিশ্বাস্য মনে হচ্ছে কিন্তু এটা আসলেও বাস্তব। আজকের আর্টিকেল থেকে আপনারা জানতে পারবেন, ৯৭ হাজার টাকা দিয়ে কিভাবে যাবেন অথবা কানাড়া যেতে কত টাকা খরচ হতে পারে, জব কিভাবে খুজবেন এই সংক্রান্ত বিষয়গুলো নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করব। চলুন এই সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্যগুলো জেনে নেওয়া যাক।

কানাডা ওয়ার্ক পারমিট ভিসা নিয়ে মাত্র ৯৭ হাজার টাকা দিয়ে যাওয়া সম্ভব

কানাডা ওয়ার্ক পারমিট ভিসা নিয়ে মাত্র ৯৭ হাজার টাকার যাওয়া সম্ভব। হয়তো অনেকেই এটা অবিশ্বাস্য বলে ভাবছেন। কিন্তু আসলেও এটা সত্য। চলুন নিচে বিস্তারিত আলোচনা থেকে জেনে নেই কত টাকা খরচ হতে পারে। এবং কোন কোন খাতে খরচ গুলো হতে পারে সে সম্পর্কে।


কানাডা যেতে কত টাকা খরচ হতে পারে

কানাডা যেতে কত টাকা খরচ হবে এবং কোন কোন কাজগুলোতে খরচ হবে তা নিম্নে আলোচনা করা হলো।
  1. প্রথমত আপনি অনলাইনের মাধ্যমে জব এরেঞ্জ করবেন। তারপরে আপনি যে অফার লিটারটি পাবেন সেই অফার লেটার পাওয়া পর্যন্ত আপনার একটি টাকাও খরচ হবে না। নিম্নে আরো বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। পুরো কনটেন্টই মনোযোগ সহকারে পড়ুন।
  2. আপনি যদি জব পেয়ে যান এবং তাদের কাছে যদি আপনি খুবই মূল্যবান হন তবে আপনার টিকিট খরচসহ আপনার যাবতীয় খরচ তারই বহন করবে। টাকা না নিতে পারেন তবে কেমন খরচ হবে তা হল।
  3. যখন আপনি ভিসার জন্য এপ্লাই করবেন তখন আপনার খরচ হবে বাংলাদেশের মুদ্রায় ১২ থেকে ১৩ হাজার টাকা
  4. আর ফিঙ্গারপ্রিন্ট যদি অ্যাপ্রুভ হয় সেক্ষেত্রে আপনার খরচ হবে প্রায় ৭ থেকে ৮ হাজার টাকা
  5. যদি কোম্পানি আপনাকে প্লেনের টিকিট বা প্লেন ফেয়ার না দেয় তবে আপনার এক্ষেত্রে খরচ হবে আরো প্রায় ৭০ থেকে ৭৫ হাজার টাকা
  6. এক্ষেত্রে আমরা বুঝতে পারছি আপনি যদি নিজে নিজে সবকিছু করেন তবে আপনার বাংলাদেশ থেকে কানাডা যেতে মোট ৯৫ থেকে ৯৭ হাজার টাকা খরচ হবে।
  7. এছাড়া আর কোন খরচ নেই কানাডা যাবার ক্ষেত্রে।

কানাডা ওয়ার্ক পারমিট ভিসা নিয়ে মাত্র ৯৭ হাজার টাকা দিয়ে কিভাবে যাব

কানাডা ওয়ার্ক পারমিট ভিসা নিয়ে আপনি যদি যেতে চান সপ্ত নব্বই হাজার টাকা দিয়ে তবে আপনাকে অনেক দক্ষ হতে হবে। ৯৭ হাজার টাকা দিয়ে যেতে চাইলে সকল কাজগুলো করতে হবে তা নিম্নে উল্লেখ করা হলো।
  • প্রথমত আপনাকে কানাডা জব খুঁজতে হবে। হয়তো অনেকেই ভাবছেন আমরা কানাডা জব কিভাবে খুজবো বা কিভাবে খুঁজে পাবো। বর্তমান সময়ে অনলাইনের মাধ্যমে সবকিছু করা সম্ভব। আপনারা অনলাইনের মাধ্যমে বিভিন্ন ওয়েবসাইটে গিয়ে জব খুঁজবেন।
  • অতঃপর সেখানে আপনি এপ্লাই করবেন আপনার ডকুমেন্টসগুলো দিয়ে।
  • এপ্লাই করার পরে আপনার ডকুমেন্টস এবং এজিমি গুলো দেখে যদি তারা আপনাকে জবের জন্য কল করে। তারপরে আপনাদের ইন্টারভিউ হবে। ইন্টারভিউ টিকলে আপনাকে জবের জন্য সিলেক্ট করবে।
  • তারপর তারা একটি ডেট দিবে সেই ডেট অনুযায়ী আপনারা সেখানে গিয়ে কাজ করতে পারবেন। মানে তারা উল্লেখ করবে যে আপনি এতদিন পর থেকে তাদের কোম্পানিতে বা তাদের কাছে কাজ করতে পারবেন। আপনার সকল ডকুমেন্টস গুলো ঠিকঠাক থাকলে আপনি সেই তারিখে গিয়ে কাজ শুরু করতে পারবেন।
  • তারা যখন আপনাকে জবের অফার লেটারটি দিয়ে দিবে সেই অফার লেটার টি দিয়ে আপনারা ভিসার জন্য এপ্লাই করবেন। এ সকল কাজ করা গুলো পর্যন্ত আপনার একটি টাকাও খরচ হবে না।
  • আপনি যদি তাদের জবের ক্ষেত্রে খুবই গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি হয়ে থাকেন তবে সকল খরচ তারাই বহন করবে। সে ক্ষেত্রে আপনার একটি টাকাও খরচ হবে না।
এভাবে আপনারা জব ম্যানেজ করে খুব সহজেই স্বল্প টাকায় বাংলাদেশ থেকে কানাডায় ওয়ার্ক পারমিট ভিসা নিয়ে যেতে পারেন।


কানাডা ওয়ার্ক পারমিট ভিসা মাত্র ৯৭ হাজার টাকায়

এজেন্সির মাধ্যমে ৯৭ হাজার টাকা দিয়ে যাওয়া সম্ভব

না ৯৭ হাজার টাকা দিয়ে আপনারা এজেন্সির মাধ্যমে কানাডা যেতে পারবেন না। সত্য নব্বই হাজার টাকা দিয়ে যেতে চাইলে পুরোটাই আপনাকে নিজে নিজে করতে হবে। আপনার যদি সিভি শক্তিশালী থাকে এবং আপনি যদি দক্ষ হয়ে থাকেন তবে আপনি এই টাকার মধ্যে কানাডা যেতে পারবেন। সবাই এমনভাবে কানাডা যেতে পারবেন না।

এই সংক্রান্ত আরো অন্যান্য তথ্য জানতে চাইলে কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করুন। সকল প্রকার আপডেট তথ্য এবং আপনাদের মূল্যবান প্রশ্নের উত্তর সব সময় আমরা দিয়ে থাকি। সুতরাং কোন প্রশ্ন থাকলে দ্রুত শেয়ার করুন।
Next Post Previous Post
No Comment
Comment Here
comment url